ঝড়ের নাম পাঠান

শাহরুখ খান।
শাহরুখ খান।

প্রেক্ষাগৃহে আজ মুক্তি পাচ্ছে ‘পাঠান’। সিনেমাটি দিয়ে দীর্ঘ চার বছর পর রূপালি পর্দায় ফিরলেন ‘কিং অব রোমান্স’ শাহরুখ খান। তবে এবার শুধু রোমান্সই নয়, দর্শকরা তাকে দেখতে পাবেন ধুন্ধুমার অ্যাকশনে। স্পাই থ্রিলার এ ছবিতে তার বিপরীতে রয়েছেন বলিউড কুইন দীপিকা পাড়ুকোন। পর্দায় এ জুটির উপস্থিতি মানেই দর্শক-হৃদয়ে তুমুল আলোড়ন।‌ তাদের বিগত তিন সিনেমা তেমনটাই প্রমাণ করে, সিনে বিশ্লেষকরা এবারো তাই ধারণা করছেন। যশরাজ ফিল্মস প্রযোজিত ‘পাঠান’ পরিচালনা করেছেন সিদ্ধার্থ আনন্দ। সিনেমাটির আদ্যোপান্ত থাকল তারাবেলায়—

ধারাবাহিকতার ছাপ

পুরোনো দুটি সিনেমার ছাপ থাকছে পাঠান সিনেমায়। যোগাযোগ রক্ষা করেছে পরিচালক আদিত্য চোপড়ার স্পাই ইউনিভার্সের সঙ্গে। ‘টাইগার’ বেশে ক্যামিও চরিত্রে পর্দা রাঙিয়েছেন সালমান খান। আর শাহরুখকে দেখা যাবে গায়ক-অভিনেতা-নির্মাতা ফারহান আখতারের ‘ডন টু’ লুকে।

বৈকাল হ্রদে শুটিং

প্রথম কোনো ভারতীয় সিনেমা হিসেবে বৈকাল হ্রদে শুটিং হয় পাঠানের। সৌন্দর্যমণ্ডিত বিশ্বের এ গভীরতম হ্রদের আশপাশেই দৃশ্যায়ন হয়েছে শাহরুখের বাইক রেসিং অ্যাকশন দৃশ্য। ২০২০ সালে মুম্বাইয়ে ফটোগ্রাফির মাধ্যমে শুরু এ ছবির শুটিং, পুনঃদৃশ্যায়ন শেষ হয় ২০২২ সালের অক্টোবরে। ভারত, আফগানিস্তান, স্পেন, আরব আমিরাত, তুরস্ক, ইতালি, ফ্রান্সে শুটিং হয় ‘পাঠান’।

কারিগরিতে নতুনত্বের ছোঁয়া

সিনেমাটির দৃশ্যায়ন হয়েছে আইম্যাক্স ক্যামেরায়। এটিই ভারতের প্রথম চলচ্চিত্র, যার পুরোটা ধারণ করা হয় আইম্যাক্সে।

ডব্লিউডব্লিউই রেসলিং

এ সিনেমায় শাহরুখের অ্যাকশন দৃশ্যে মিলবে ডব্লিউডব্লিউই রেসলিং চমক, কারণ মারপিটের দৃশ্যগুলো সেখান থেকেই অনুপ্রাণিত। রেসলিং জগতে কিকের জন্য প্রশংসিত শন মাইকেলের ‘সুইট চিন মিউজিক’ অবলম্বনে কিক দিতে দেখা যাবে শাহরুখ খানকে। আর জন আব্রাহামের উড়ন্ত ঘুসির পেছনে রয়েছে রোমান রেইন্সের ‘সুপারম্যান পাঞ্চ’।

পারিশ্রমিক

ভারতীয় গণমাধ্যমের বিভিন্ন প্রতিবেদনে জানা গেছে, এ ছবির মাধ্যমেই বলিউডে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকের শিল্পী হিসেবে খাতা

খুলেছেন শাহরুখ। পাঠানের জন্য তিনি নিয়েছেন ১০০ কোটি রুপি। সিনেমায় জন আব্রাহামকে দেখা যাবে খলনায়কের ভূমিকায়। এজন্য তার পারিশ্রমিক ২০ কোটি টাকা। অন্যদিকে নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করবেন দীপিকা পাড়ুকোন। এ জন্য তিনি পেয়েছেন ১৫ কোটি টাকা। এ ছাড়া সিনেমাটির লভ্যাংশের ৪৫ শতাংশ পাবেন শাহরুখ খান। ক্যামিওর জন্য ‘বলিউড ভাইজান’ সালমানকে বিরাট অঙ্কের পারিশ্রমিক দেওয়ার ইচ্ছে পোষণ করেছিল প্রযোজনা সংস্থা; কিন্তু অভিনেতা নিতে চাননি। আর ডিম্পল কাপাডিয়া কত পারিশ্রমিক নিয়েছেন তা এখনো জানা যায়নি।

নির্মাণ খরচ

পাঠান সিনেমায় মোট ব্যয় হয়েছে ২৫০ কোটি রুপি।

দীপিকা পাড়ুকোন
দীপিকা পাড়ুকোন

যত বিতর্ক

বিতর্কও কম বাধেনি ‘পাঠান’ ঘিরে। বয়কেটের আহ্বান থেকে শুরু করে শাহরুখকে হত্যার হুমকি, সবকিছু ‍মিলিয়েই আলোচনায় ছিল সিনেমাটি। প্রথম গান ‘বেশরম রং’ মুক্তি পেতেই বিতর্কের শুরু। এতে অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোনের একটি বিকিনি দৃশ্য নিয়ে আপত্তি ওঠে নানামহলে। বিতর্কে রং লাগে রাজনীতিরও। গেরুয়া রঙের বিকিনি পরার কারণে ক্ষমা চাইতে হবে, এমন দাবি জানান কয়েকজন বিজেপি নেতা। ঘনিষ্ঠ দৃশ্যর জন্য সিনেমাটিতে কাঁচি পড়ে ভারতের সেন্ট্রাল বোর্ড অব ফিল্ম সার্টিফিকেশনের। এ ছাড়া সিনেমাটি মুক্তির আগেই ইউটিউবে দেখা যাচ্ছে বলেও গুঞ্জন উঠেছিল। যদিও তা সত্য নয়।

চুমুর দৃশ্য

কয়েকদিন আগে টুইটারে ‘আস্ক এসআরকে’ সেশনে অংশ নিয়েছিলেন শাহরুখ খান। সেখানে এক ভক্ত তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, ‘পাঠান’-এ কোনো চুমুর দৃশ্যে তাকে দেখা যাবে কিনা, উত্তরে বলিউড বাদশা বলেন, ‘পাঠান কিস (চুমু) কারনে নাহি... কিক কারনে আয়া হ্যায়’। মানে ‘কিস নয়, কিক দিতে আসছে পাঠান’।

বলিউডের প্রতিনিধিত্ব

দীর্ঘদিন ধরে ফ্লপ করছে বলিউড। যে কারণে ‘পাঠান’ যদি দর্শকের মন জয় করতে পারে, তবে ঘুরে দাঁড়াবে বলিউড। এরই মধ্যে সিনেমাটি বিভিন্ন দিক থেকে রেকর্ড গড়েছে। মুক্তি পেয়েছে বিশ্বের ১০০র অধিক দেশে। এ ছাড়া মঙ্গলবার দুপুর ১২টার আগ পর্যন্ত অগ্রিম টিকিট বিক্রি হয় ৪ লাখ ১৫ হাজারের মতো। খবর ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের। বলিউডের বাণিজ্য বিশ্লেষকদের মতে যা সর্বকালের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে।

সম্পর্কের রসায়ন

সম্প্রতি যশরাজ ফিল্মসের এক ভিডিও বার্তায় বলিউড বাদশাকে নিয়ে মুখ খুলেন এ অভিনেত্রী। তিনি বলেন, “তার (শাহরুখ) প্রতি আমার যে অনুভূতি সেটি কখনো ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না। আমার কাছে এ সম্পর্কটি একটি শর্তহীন আবেগ আর ভালোবাসাপূর্ণ। আমার ক্যারিয়ারের শুরু তার সঙ্গে। আমি মনে করি, আমরা খুব ভাগ্যবান যে, ‘ওম শান্তি ওম’সহ একসঙ্গে বিভিন্ন ধরনের সিনেমা করার সুযোগ পেয়েছি। সত্যি বলতে, এ জায়গায় আমাদের দুজনকে দেখা আমার জন্য খুবই রোমাঞ্চকর এবং আমি নিশ্চিত যে তিনিও এমনটাই ভাবেন।”

পরিচালকের আমলনামা

নির্মাতা সিদ্ধার্থর ক্যারিয়ারের সপ্তম সিনেমা এটি। এর আগে তিনি ‘সালাম নামাস্তে’, ‘তারা রাম পাম’, ‘বাচনা এ হাসিনো’র মতো জনপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়েছেন। এ সিনেমা দিয়ে তিন বছর পর দর্শকদের মাঝে ফিরছেন ‍তিনি।

বাংলাদেশে আসছে না পাঠান

সাফটা চুক্তির আওতায় বাংলাদেশে পাঠান মুক্তির কথা শোনা গিয়েছিল। কিন্তু মঙ্গলবার তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকে সিনেমাটি আপাতত না আনার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com