দশ কারণে রাইড শেয়ারিং ও অটোরিকশায় বিশৃঙ্খলা

দশ কারণে রাইড শেয়ারিং ও অটোরিকশায় বিশৃঙ্খলা
ছবি : কালবেলা

ঢাকা মহানগরে সিএনজি অটোরিকশা চলাচলে গ্রাহকের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় এবং রাইড শেয়ারিংয়ে অনিয়ম ও বিশৃঙ্খলার বিষয়ে ১০টি কারণ চিহ্নিত করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। গতকাল মঙ্গলবার সংশ্লিষ্ট পক্ষের সঙ্গে অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ে পৃথক দুটি সভায় এসব বিষয় চিহ্নিত করা হয়। সভায় সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে বিদ্যমান সমস্যাগুলো এবং তা থেকে উত্তরণের বিষয়ে আলোচনা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) এ এইচ এম সফিকুজ্জামান।

অধিদপ্তর থেকে জানানো হয়, সিএনজি অটোরিকশা মিটারে না চলা, অসাধু সিএনজি মালিক ও চালকরা নিজেদের মধ্যে সমঝোতা করে শিফটিং পদ্ধতি চালু করা, বিআরটিএ কর্তৃক নির্ধারিত জমার চেয়ে সিএনজি অটোরিকশা মালিক কর্তৃক চালকদের কাছ থেকে অতিরিক্ত জমা আদায়, প্রাইভেট সিএনজির অবাধ চলাচল, বিআরটিএ কর্তৃক জমা মূল্যের হার পুনর্নির্ধারণ না করা ইত্যাদি সমস্যা চিহ্নিত করা হয়েছে।

অন্যদিকে রাইড শেয়ারিং সংক্রান্ত সভার বিষয়ে জানানো হয়, রাইড শেয়ারিং নীতিমালা, ২০১৭ অনুসরণ না করা, রাইড শেয়ারের ভাড়া নির্ধারণ ও পিক-অফপিক আওয়ারের ভাড়া নির্ধারণ পদ্ধতি সুস্পষ্ট না থাকা, রাইড রিকোয়েস্ট পাওয়ার পর চালক কর্তৃক যাত্রীর কাছে কোনো গন্তব্য জানতে চাওয়া এবং গন্তব্য পছন্দ না হলে রিকোয়েস্ট বাতিল করা, রাইড শেয়ারিং কর্তৃপক্ষ কারণ ছাড়া চালকদের আইডি বন্ধ করা, রাইড শেয়ারিং কর্তৃপক্ষ রাইড শেয়ারিংয়ের ভাড়া কতটুকু যৌক্তিক রাখা হচ্ছে, সে বিষয়ে স্পষ্টতা না থাকা ইত্যাদি সমস্যাগুলো চিহ্নিত করা হয়েছে।

সভায় অধিদপ্তরের প্রধান কার্যালয়ের কর্মকর্তাগণ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধি, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের প্রতিনিধি, ক্যাবের প্রতিনিধি, বাংলাদেশ অটোরিকশা হালকাযান পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধি, ঢাকা জেলা ফোর স্ট্রোক অটোরিকশা ড্রাইভার্স ইউনিয়নের প্রতিনিধি, ঢাকা সিএনজি অটোরিকশা মালিক সমিতির প্রতিনিধি, ঢাকা মহানগর সিএনজি অটোরিকশা মালিক সমিতির প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

রাইড শেয়ারিংয়ের সভায় অন্যদের সঙ্গে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব, ঢাকা রাইড শেয়ারিং ড্রাইভার্স ইউনিয়নের সভাপতি, উবার বাংলাদেশের প্রতিনিধি, পাঠাও প্রতিনিধি, ওভাইয়ের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বলেন, মালিক ও চালকপক্ষকে সমন্বিত হয়ে সরকারি আইন ও বিধিবিধান অনুসরণ করে যাত্রীদের প্রতিশ্রুত সেবা প্রদান নিশ্চিত করতে হবে। একইভাবে তিনি রাইড শেয়ারিং কর্তৃপক্ষ ও চালকদের সব সরকারি আইন ও বিধিবিধান অনুসরণ করে যাত্রীদের প্রতিশ্রুত সেবা প্রদান নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

এ সম্পর্কিত খবর

No stories found.
logo
kalbela.com