গল্প

অভিষেক মোহাম্মদ এর ছবি

কঙ্কাল প্রলাপ

এক বন্ধু ইনবক্সে একটা গল্প পাঠিয়েছেন। ঠিক গল্প নয়, অভিজ্ঞতার কথা। এক তিরিশ ঊর্ধ্ব নারী কী ভাবে তাঁকে ব্যবহার করেছিলেন মাসের পর মাস! এক তরুণ কী ভাবে পরুষ হয়েও ধর্ষিত হচ্ছিলেন...

সুজিত দেব রায় এর ছবি

মদন এর ব্রাজিল এর জার্সি

তোকে ভালোবাসি শুধু ই তোকে

ব্লগ এ আমার প্রথম যাত্রা। ভালোবাসা ছাড়া কি আমার বাচতে পারি? পারি না তো? তাই প্রথম লেখা টা না হয় ভালোবাসা নিয়ে ই থাক। আর ভালোবাসার শুরু তো বন্ধুত্ব থেকেই। ............।।

খুনসুটি

কাব্যের জন্ম, বড় হওয়া,পরিবার,বন্ধুবান্ধব সব কিছুই ঢাকাতে।এই সব কিছু ছেড়ে কাব্যকে চাকরীর সুবাদে চট্টগ্রামে আসতে হয়েছে।কাব্য যেতে চায়নি, কিন্তু লাবণ্যের জোরাজুরিতে শেষ পর্যন্ত না গিয়ে আর পারেনি।অবশ্য এতো ভালো চাকরী আর সুযোগ- সুবিধা যে ,প্রতিষ্ঠিত হতে বেশী দিন লাগবে না।একেবারে নতুন জায়গাতে গিয়ে মানিয়ে নিতে কাব্যের বেশ কষ্ট হচ্ছে।তারপরে আবার বন্ধুবান্ধব কেউ নেই ওখানে।এইসব কিছুর জন্য লাবণ্যই

Nuzmus Sadat Sompod এর ছবি

আমাদের বাংলা স্যার

আমাদের বাংলা শিক্ষক, তার সম্পর্কে বলতে গেলে একটা কথায় বলতে হয় তিনি একেবারে বাংলা শিক্ষকের মতই ছিলেন।

সাঈদুর রহমান এর ছবি

একটা মমতার মূহুর্ত

দুপুর ২ টা বেজে গেল।রোকেয়া বেগম ঘড়ির দিকে তাকিয়ে অস্তিরতা বোধ করছিলেন।  টিফিনের বিরতিতে রাজিব এসে খেয়ে যাবার কথা।ভাত - তরকারি সাজিয়ে বসে আছেন।  এখনো  ঘরে আসেনি ছেলেটা ।সকালেও ভাল কিছু খেয়ে যা

সুজিত দেব রায় এর ছবি

অলৌকিক

ছোটবেলার অনেক কথাই ভুলে গেছি । কিন্তু সেই ঘটনাটি আমি ভুলতে পারি না । কথাটি আমি কাউকে বলিনি । এরকম কথা কাউকে বলার না । আমি তখন ক্লাস সেভেনে পড়ি । আমাদের স্কুলটা আমাদের গ্রাম থেকে এক কিলোমিটারের মত দূরে ছিল । আমরা লম্বা একটা কাচা রাস্তা ধরে যাওয়া আসা করতাম । সেদিন স্যারের একটা কাজে আমাকে...

কাসেমের ভাগ্য

ভাগ্য নিয়ে সব সময়ই আফসোসের সীমা ছিল না কাসেমের।সব সময়ই মনে হতো ভাগ্যের কারনেই সে বারবার চিপায় পড়ে।তবে আজকাল কাসেম ভাগ্য নিয়ে মেলা খুশি।ভাগ্যের কারনেই বালা যায় সে নুতুন এতো ভালো চাকরি পেয়েছে।কাসেমের নুতুন স্যার পিয়াস খন্দকার টাকাওয়ালা মানুষ তার তিনটা গাড়ি।সেই তিন গাড়ীর একটার ড্রাইভার কাসেম।বেশির ভাগ সময়ই কাসেমের ডিউটি থাকে না,শুয়ে বসে দিন কাটায়।তবে শুয়ে বসে দিন...

অনুরাগ

আমার রাগ বরাবরই একটু বেশি।তবে আজকের রাগটা কতোটা তা বর্ণনা করার মতো ঠিকঠাক শব্দ খুঁজে পাচ্ছি না।বলা যেতে পারে রাগে ফোঁস ফোঁস করছি কিন্তু যে জনাবের জন্য এই রাগ সেই জনাব আরামছে বসেবসে ডিসকভারি চেনাল দেখছে।আমি যে তার উপরে রেগে আছি সেটা সে টেরই পাচ্ছে না এতে করে আমার রাগ আরও বেড়ে যাচ্ছে।ইচ্ছা করছে একটা কঠিন ঝগড়া করি কিন্তু করছি না কারন নতুন বউয়ের ঝগড়া করতে নেই তাই।রাগের কারনে আমার মুখ ভোতা হয়ে আছে কথাবার্তা কম বলছি।এতসবের পরও যদি না বুঝে তাহলে কার না রাগ হবে।আমার ভোতা মুখে দেখে সে...

Nuzmus Sadat Sompod এর ছবি

পূর্ণিমাতে ভাইসা গেছে নীল দরিয়া

শীতকাল শেষ হয়ে যাচ্ছে। হাতটা ভীষণ অসুবিধা শুরু করে দিয়েছে। এতদিন হাত রাখতাম হয় প্যান্টের পকেটে, না হয় জ্যাকেটের পকেটে। হাতটা বয়ে বেড়ানোই এখন অসুবিধা হয়ে  দাঁড়িয়েছে।

পৃষ্ঠাসমূহ

Subscribe to গল্প